প্রকাশিত হল রাজ্য বিজেপির হবু মুখ্যমন্ত্রীর নাম। জেনে নিন এখনই

West Bengal

অকথ্য চৌধুরী , কোলকাতা : ২০২১ এগিয়ে আসতেই মানুষের মনে একটিই প্রশ্ন এবার পশ্চিমবাংলায় কোন দল ক্ষমতায় আসবে। কোন দল ক্ষমতায় আসবে এটা নিয়ে যত টা উৎসাহ তার চেয়ে বেশি উৎসাহ কোন দল থেকে মুখ্যমন্ত্রী হবে, এর থেকে আরও বেশি উৎসাহ কে মুখ্যমন্ত্রী হবে ? মমতা ব্যানার্জি হবে নাকি বিজেপি থেকে  হবে?

আর যখনই বিজেপির নাম আসছে তখনি বলা হচ্ছে বিজেপি থেকে কে মুখ্যমন্ত্রী হবে? বিজেপি থেকে কাকে মুখ্যমন্ত্রী বানানো হবে? যদিও এই মুহূর্তে মমতা ব্যানার্জি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী রয়েছে। তার বিপরীতে বিজেপি কাকে মুখ্যমন্ত্রী প্রোজেক্ট করছে তা কিন্তু এখনো পরিস্কার নয়। বিজেপি তে চলছে এই নিয়ে ভাবনা চিন্তা কে মুখ্যমন্ত্রী হবে।

মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে যে কোন একজন কে দাড় করাতেই হবে, সেটি কে? অনেক নাম উঠে এসেছে তার মধ্যে যেমন– বাবুল সুপ্রিয়।

বাবুল সুপ্রিয়-র অনেক জনপ্রিয়তা রয়েছে। নিজে একজন গায়ক, লড়াকু নেতা। সে জন্য অনেক মানুষ তাঁকে ২০২১ এ বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাইছে। অনেকে আবার ২০২১ এর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে লকেট কে দেখতে চাইছে। অনেকে আবার RSS থেকে কোন কর্মী কে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাইছে।

কিন্তু যার নাম সকল কে পিছনে ফেলে দিয়ে সবার প্রথমে রয়েছে তিনি হলেন দিলিপ ঘোষ। দিলিপ ঘোষ গ্রামে গঞ্জে ব্যাপক সারা ফেলেছে। দিলিপ ঘোষ এর প্রচুর সমর্থন রয়েছে। গ্রামের মানুষ এবং মধ্যবিত্ত মানুষ রা দিলিপ ঘোষ কে শিল মোহর দিয়ে দিয়েছে। তারা চাইছে দিলিপ ঘোষ যেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হোক। দিলিপ ঘোষ যে কোন বিপদে আপদে সকলের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। অন্য সব নেতা দের মতো অফিসে বসে লেকচার ঝাড়েন না। সব সময় সকল কে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন। অনেক প্রতিবাদ করতে গিয়ে তাঁকে তৃনমূলের গুন্ডা বাহিনীর কাছে মারও খেয়েছেন । কিন্তু তিনি সত্য কথা সকলের মুখের সামনে বলতে ভালবাসেন। আর সেই জন্য খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে যারা রাজনীতি করতে গিয়ে অনেক ঝামেলার সম্মুখীন হয়েছেন এবং দলের নিচু তলার কর্মীরাও দিলিপ ঘোষে বিশ্বাসী। তারা চাইছেন দিলিপ ঘোষই মুখ্যমন্ত্রী হোক। এবং যারা তৃনমূলের গুন্ডা বাহিনীর কাছে অত্যাচারিত হয়েছেন, মার খেয়েছেন সে সব কিছুর প্রতিশোধ নেবার জন্য একটিই মুখ তিনি হলেন দিলিপ ঘোষ।

কিন্তু বাংলার বুদ্ধিজীবী সমাজ। যারা শিক্ষিত মানুষ , তারা মুখ্যমন্ত্রী পদে দিলিপ ঘোষের নামে অমত জানিয়েছেন। তারা দিলিপ ঘোষ কে বলেছেন দিলিপ ঘোষ হটকারি নেতা। তিনি অনেক বে ফাস কথা বলে ফেলেন। তাই তারা চাইছেন দিলিপ ঘোষ নয়, এমন একজন ব্যক্তি , যাকে সকলে চাই, এবং যার মধ্যে রয়েছে সেস্ঠাচার। সেই দিক দিয়ে একটি নাম সবার প্রথমে উঠে এসেছে তা হল – সৌরভ গাঙ্গুলি। সকলে চাইছেন সৌরভ গাঙ্গুলি কে যেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বানানো হয়। তাই বুদ্ধিজীবী সমাজের চাপে বিজেপি এখন সৌরভ মুখী হয়ে রয়েছেন। যদিও সৌরভ এ বিষয়ে কিছু বলেন নি। কিন্তু বিজেপির সঙ্গে সৌরভের নাম  জড়িয়েই গিয়েছে। তাই এখন দিলিপ ঘোষ আর সৌরভ গাঙ্গুলি কে নিয়ে চলছে চরম উদ্দিপনা। কে হবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

যদিও বিজেপি নেতৃত্ব বলেন “এখন আপনারা যাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চাইবেন তাকেই করা হবে ২০২১ এ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। সে জন্য আপনারা সকলে আপনাদের নিজেদের মতামত লিখে যান আমাদের কমেন্ট বক্সে। এখান থেকে বিজেপি দলের আধিকারিক দের সুবিধা হবে ২০২১ এর মুখ্যমন্ত্রী কে বাছাই করতে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *