সাইকেল যাত্রা করে বন্যপ্রাণীর রক্ষার বার্তা দিলেন তারকেশ্বর এর সামাজিক সংস্থা

Bankura & Purulia Howrah & Hooghly

অরিজিৎ চক্রবর্তী , তারকেশ্বর : তারকেশ্বরের একটি সংস্থা বন্যপ্রাণীর রক্ষার তাগিদে, তারকেশ্বর থেকে প্রায় 80 কিলোমিটার বাঁকুড়া জেলার জয়পুর জঙ্গল পর্যন্ত সাইকেলে যাত্রা করলেন। সংখ্যা বেশি নেই, হাতেগোনা কিছু যুবক , কিন্তু মনের মধ্যে আত্মবিশ্বাস এবং কর্ম নিষ্ঠার সাথে কাজ করে চলেছে তারকেশ্বর গ্রীন মিটস নামক একটি সংস্থা। আমাদের স্থানীয় এলাকার মধ্যে বিশেষত যে সমস্ত বন্য প্রাণী গুলির লক্ষ্য করা যায় তাদের উদ্ধার করে নির্দিষ্ট স্থানে ছেড়ে আসা এই সংস্থার একটি বিশেষ কাজ।

সংস্থা সূত্রে জানা গেছে তাদের এই কাজের জন্য বহুবার বহু রকম প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছে , বিশেষত আমাদের স্থানীয় এলাকার মধ্যে বন্যপ্রাণী বলতে সাপের প্রকোপ টাই বেশি, তাই যখন গ্রীন মিটস সাপেদের উদ্ধারকার্যে যায় তখন অনেকেই প্রশ্ন করেন , তারা কি এই সাপ গুলির বিষ বিক্রি করবেন? তাছাড়াও বিভিন্ন প্রকার কুসংস্কার প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে বলে জানান কর্মকর্তারা। এই করোনা মহামারী কালে 24 ও 25 শে আগস্ট বন্যপ্রান রক্ষার বার্তা নিয়ে

সাইকেলে যাত্রা করেন গ্রীন মিটস কর্মকর্তারা, আবহাওয়া ভালো ছিল না , নিম্নচাপ আকাশে বর্তমান । তাও অল্প কিছু আয়োজন করে এই যাত্রা শুরু হয়েছিল বলে জানা যায়। রাস্তায় মাঝে মাঝে সামান্য বৃষ্টি উল্টোদিক থেকে ঘন ঘন বালির লরি আগমন তারকেশ্বর থেকে আরামবাগ পর্যন্ত বেহাল রাস্তায় এগিয়ে চলে এই সংস্থার যুবকরা । সংস্থা কর্তৃপক্ষ দ্বারা জানা যায় ২০১২ সাল থেকে আমাদের পথ শুরু, আমাদের গ্রীন মিটস দ্বারা ভাম, খটাশ, গন্ধগোকুল, সাপ, গোসাপ , প্রভৃতি বন্যপ্রাণীর উদ্ধার এর পাশাপাশি বস্ত্রদান রক্তদান ইত্যাদি সেবামূলক কাজ করেছি,,,, এমনটাই বলেন কর্তৃপক্ষ রা।
সাইকেল যাত্রার বিষয় ওনারা বলেন – ” এটা আমাদের ট্রায়াল’ মাত্র ছিল। আসলে দলের কনিষ্ঠ জনের বয়স ছিল 17 বছর তাই আমরাও আমাদের দেখতে চাইছিলাম । এরপর করোনা মহামারীর অবসান ঘটলে এরকম অনেক সাইকেল যাত্রা করবো। আশা করছি আরো অনেক জনকে পাশে পাব” ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *